রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপকারিতা ও ইসলামে ঘুমানোর সঠিক নিয়ম

রাতে-তাড়াতাড়ি-ঘুমানোর-উপকারিতা

আসসালামু আলাইকুম আশা করি সবাই ভালো আছেন আজকে আমরা জানবোরাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপকারিতা,রাতে ঘুমানোর সঠিক সময় কখন,ইসলামে ঘুমানোর সঠিক নিয়ম,ঘুমানোর আগে কি করা উচিত,রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়,রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর হাদিস বিস্তারিত নিম্নে আলোচনা করা হলো।

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপকারিতা

রাতে ঘুমানোর উপকারিতা অনেক আমরা অনেকেই হরহামেশাই রাত জাগি শুধু শুধু মোবাইল টিপে অথবা কেউ কম্পিউটার চালানোর জন্য ইন্টারটেইনমেন্ট নেওয়ার জন্য

আবার কেউ প্রয়োজনে রাত জাগে কিন্তু রাত জাগা শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর আজকে আমরা

ইসলামিক ও বৈজ্ঞানিক দিক থেকে রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর কি কি উপকারিতা রয়েছে তা নিচে বিস্তারিত দেখব

আমরা যেমন সুস্থ থাকার জন্য খাবার খাই ব্যায়াম করি এগুলা আমাদের শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য যতটা গুরুত্বপূর্ণ

তেমনি গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে রাতে ঘুমানো রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমালে মুখে লাবণ্যতা বৃদ্ধি পায়,

অস্থিরতা কম হয় দিনে মন্টি ফুরফুরা থাকে আচার-ব্যবহার ভালো হয় সব কাজে মন বসে মুখে ব্রণ কম হয়

এবং সকল কাজেই আমাদের ভালো অনুভূতি হয়

এখন আমরা দেখব রাতে দেরিতে ঘুমালে কি কি ক্ষতি হয় তাহলে রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমালে কি কি উপকার হয় সেটা আমরা খুব সহজে বুঝতে পারব

মেয়েদের দ্রুত ওজন কমানোর উপায় ঘরে বসে ডায়েট ছাড়াই

রাতে দেরিতে ঘুমালে কি ক্ষতি হয়

রাতে দেরিতে ঘুমালে শরীরে অনেক রোগ বাসা বাঁধে তারমধ্যে সবচেয়ে ক্ষতিকর প্রভাব গুলি শরীরে পরে

তা নিয়ে আমরা এখন আলোচনা করবো রাতে দেরিতে ঘুমালে মুখে ব্রণ ওঠে

মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায় অস্বস্তি বোধ হয় কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দেয় মানসিক সমস্যা হয় ডায়াবেটিসের প্রবণতা বেড়ে যায়

মানসিক কর্মদক্ষতা কমে যায় ব্লাড প্রেসার বাড়তে শুরু করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা কমে যায়

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় ওজন বৃদ্ধি পায় কম দেখতে পায় বাবা মা হতে সমস্যা দেখা দিতে পারে

মস্তিস্কের ক্ষমতা কমে যেতে শুরু করে সময় স্বল্পতায় আমরা মাত্র কয়েকটি নিয়ে আলোচনা করলাম

তাই আমাদের উচিত রাতে না জেগে তাড়াতাড়ি ঘুমানো

গরম পানি খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

রাতে ঘুমানোর সঠিক সময় কখন

রাতে ঘুমানোর সঠিক সময় হচ্ছে এশার নামাজের পরে ঘুমিয়ে পড়া ইসলামের শরীয়তে অথবা বৈজ্ঞানিকদের মতে ও এশার নামাজের পরে ঘুমিয়ে যাওয়া হচ্ছে সবচাইতে উত্তম সময়

এবং সকাল সকাল ঘুম থেকে ওঠা হচ্ছে সবচাইতে ভালো অভ্যাস রাত দশটার সময় ঘুমিয়ে পড়া

এটা হচ্ছে ঘুমানোর সবচাইতে ভালো সময় কিন্তু আমাদের পরিবেশের জন্য

বর্তমানে অনেক রাত হয়ে যায় কিন্তু ঘুমানোর সময় হয়না আমাদের তাই এই বিষয়টি আমাদের মাথায় রাখা অতি আবশ্যক

যেন ফ্যামিলির সবাই 10 থেকে 11 টার মাঝে সবাই ঘুমিয়ে পড় তাহলে স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি উপকৃত হবে.

ইসলামে ঘুমানোর সঠিক নিয়ম

ইসলামে ঘুমানোর সঠিক নিয়ম হচ্ছে এশার নামাজের পরে ঘুমিয়ে পড়া ঘুমানোর পূর্বে ঘুমানোর দোয়া পড়া আয়তন কুরসি পড়া আরো বিভিন্ন আমল করা

ডান কাত হয়ে পশ্চিম দিকে মাথা রেখে ডান হাতের তালু মাথার নিচে দিয়ে বাম পা টা একটু বাঁকা করে বাম হাত কোমরের উপর রেখে সুন্নত তরিকায় ঘুমানো হচ্ছে ইসলামের সঠিক নিয়ম

ঘুমের দোয়া “আল্লাহুম্মা বিসমিকা আমুতু ওয়া আহয়া

ঘুমানোর আগে কি করা উচিত

ঘুমানোর আগে ওয়াশরুম থেকে শেষ হয়ে আশা এবং এক গ্লাস পানি পান করা অবশ্যই ব্রাশ করা ঘুমানোর আগে

একটু হাঁটা চলা করা ঘুমের দোয়া পড়া ঘুমের পূর্বে কিছু বিশেষ আমল রয়েছে সেগুলো করা শরীরে ঢেকে ঘুমানো

অর্থ শরীরের সকল কাপড় না করলে ঘুমানো পাতলা গেঞ্জি পরে হলেও ঘুমানো যেন শরীর খালি না থাকে

তাছাড়াও বিশেষ কিছু করা যেতে পারে ঘুমানোর পূর্বে একটু কোরআন শরীফ তেলাওয়াত করা দরজা লক করা হয়েছে কিনা সেটা খেয়াল করা

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপায়

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর সবচাইতে সহজ উপায় হল মনের ইচ্ছা এবং চেষ্টা তাড়াতাড়ি ঘুমানোর জন্য এশার নামাজের পরেই খাওয়া-দাওয়া শেষ করতে হবে

এবং যদি বাসায় ওয়াইফাই রাউটার থাকে তাহলে এশার নামাজ পড়ে রাউটার খুলে ফেলা যেন কোনোভাবেই মোবাইলে বা কম্পিউটারে নেট যোগাযোগ না থাকে

বাড়ির সকল কাজকর্ম গুছিয়ে রাখা এশার নামাজের পূর্বে নামাজ পড়ার পর

একটু তেলাওয়াত করে একটু তালিম করে বাতি নিভিয়ে ফেলতে হবে এবং দরজা বন্ধ করে দিতে হবে তাহলেই রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানো সম্ভব

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর হাদিস

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর ইসলামিক নিয়ম এবং হাদিস অনুসারে যে নিয়ম গুলো রয়েছে তা হলো

এশার নামাজের পরে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়া এবং শেষ রাত্রে ওঠে আল্লাহ তাআলার ইবাদত করা

অর্থাৎ তাহাজ্বতের নামাজ আদায় করা যদি কেউ তাড়াতাড়ি না ঘুমায় সে কখনোই শেষ রাতে উঠতে পারবেনা কষ্ট হবে

তাই রাতের শুরুতে অর্থাৎ এশার নামাজের পরে ঘুমিয়ে পড়া এবং রাতে তাহাজ্জুদ পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলা

কেউ যদি রাতে তাহাজ্জুদ পড়ে তার জন্য ফরজ নামাজ ফজরের নামাজ মিস হওয়ার কোনো সম্ভাবনা থাকেনা

তাই শরীয়তে নিয়ম হচ্ছে এশার নামাজের পরে ঘুমিয়ে পর

রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপকারিতা সমাপনী

পরিশেষে বলা যায় আর রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর উপকারিতা অনেক কিন্তু রাতে দেরিতে ঘুমানো ক্ষতি অনেক বেশি

এবং শরীয়তে নিয়ম হচ্ছে রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানো তাই আমরা এখন থেকে রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানোর জন্য চেষ্টা করব এবং আল্লাহর কাছে দোয়া করব

আশা করি আপনাদের কাছে আমাদের এই পোস্টটি ভাল লাগছে যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন ,আসসালামু আলাইকুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *