১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার pc build under 15000 taka

১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার

১০ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার আজকে আমরা দেখবো কিভাবে ১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার|pc build under 15000 taka তৈরি করতে পারি যেসব ভালো ভালো কম্পোনেন্ট দিয়ে আমরা আজকের কম্পিউটার তৈরি করব সে সম্পর্কে নিম্নে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে

এবং সকল কম্পোনেন্টের সাথে অনলাইন প্রাইস এর লিংক শেয়ার করা হবে যেন আপনাদের বোঝতে এবং ক্রয় করতে সুবিধা হয়

১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার তৈরিতে কি কি লাগবে?

আজকে আমরা দেখবো যে 10 থেকে 15 হাজার টাকার মধ্যে একটি কম্পিউটার তৈরি করতে ইনপরটেন যে বিষয়গুলো লাগবে অর্থাৎ যে কম্পোনেন্টগুলো ছাড়া কম্পিউটার অন হবে না শুধুমাত্র সেই কম্পিউটার পার্টস গুলো নিয়ে আলোচনা করব

আমরা জানি একটি কম্পিউটার চালানোর জন্য অনেকগুলো পার্সেল প্রয়োজন হয় কিন্তু কিছু কম্পোনেন্ট রয়েছে যেগুলো ছাড়াও কম্পিউটার ভাল ভাবে চালানো যায় তাই শুধুমাত্র আমরা অতি প্রয়োজনীয় প্রোডাক্ট গুলো নিয়ে আলোচনা করব

হেলথ টিপস

PC Build Under 15000 Taka কম্পোনেন্ট লিস্ট

১০ থেকে ১৫ হাজার টাকার মানের একটা কম্পিউটার তৈরি করতে যে কম্পোনেন্টগুলো অত্যাবশ্যকীয় সেগুলো হলো

  • প্রসেসর
  • কুলিং ফ্যান
  • মাদারবোর্ড
  • রেম
  • হার্ডডিক্স/SSD
  • পাওয়ার সাপ্লাই
  • কেচিং
  • কিবোর্ড মাউস

একটি কম্পিউটার তৈরি করতে এই কম্পোনেন্ট গুলো অবশ্যই লাগবে এগুলোর কোনো একটি ছাড়া আপনার কম্পিউটার চালাতে পারবেন না।

এছাড়াও যে কম্পোনেন্ট গুলো আপনি এক্সট্রা ফ্যাসিলিটির জন্য নিতে পারেন সেগুলোর মধ্যে রয়েছে

  • ইউপিএস
  • গ্রাফিক্স কার্ড
  • হেডফোন
  • সাউন্ড বক্স
  • মাইক্রোফোন
  • ওয়েব ক্যাম
  • ডিভিডি
  • মাউস প্যাড, ইত্যাদি

১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার কম্পোনেন্ট ডিটেইলস

10 থেকে 15 হাজার টাকার মধ্যে একটি কম্পিউটার তৈরি করতে যে পার্স গুলি লাগবে সে পার্স গুলি কেমন হবে ?কোন ব্রান্ডের নিলে ভালো হবে কোনটা প্রাইস কত? কোথায় থেকে কিনবেন বিস্তারিত নিম্নে আলাদা আলাদা ভাবে আলোচনা করা হলো

এখন আমরা শুধুমাত্র সেই পার্স গুলো নিয়ে আলোচনা করবো যেগুলো কম্পিউটারের অতিপ্রয়োজনীয় যেগুলো ছাড়া কম্পিউটার চালু হবে না

প্রসেসর

প্রসেসর হল কম্পিউটারের অতি প্রয়োজনীয় একটি পার্স এই প্রজেক্টটি সাধারণত দুইটি কোম্পানি অফার করে থাকে একটি হচ্ছে ইন্টেল প্রসেসর অন্যটি হলো AMD রাইজেন প্রসেসর,

আমরা যে 10 থেকে 15 হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার তৈরি করতে চাচ্ছি এই প্রাইসে ইন্টেল অথবা AMD রাইজেন কোন নতুন প্রসেসর দিয়ে কম্পিউটার তৈরি করা যাবে না

কিন্তু ইন্টেলের কিছু পুরাতন প্রসেসর রয়েছে যেগুলো আপনি নিতে পারেন কমদামের ভিতরে তবে বড় কথা হচ্ছে প্রসেসরগুলো সাধারণত নষ্ট হয়না খুব কম

১০০তে দুই থেকে একটা নষ্ট হয় তাই আমরা আজকে প্রসেসর হিসেবে ইন্টেলের প্রসেসর সিলেক্ট করব কারণ রাইজেন পুরাতন প্রসেসর সাধারণত পাওয়া যায় না.

আজকের 10 থেকে 15 হাজার টাকার কম্পিউটারের প্রসেসর হিসেবে থাকছে Intel 3rd Generation Core i5-3470 Ivy Bridge Processor যার অনলাইন প্রাইস ২৪০০থেকে ২৫০০ টাকা

প্রসেসর প্রাইস লিংক

কুলিং ফ্যান

প্রসেসর এর সাথে একটি কুলিং ফ্যান নিবেন মানের যেন আপনার প্রসেসরকে কুল রাখতে পারে ঠান্ডা রাখতে পারে প্রসেসর যেন বেশি গরম না হয়ে যায়

তাই আপনারা এই কুলিং ফ্যান টি নিতে পারেন কম টাকার মাজে ভালো একটি কুলিং ফ্যান

প্রসেসর এর সাথে একটি কুলিং ফ্যান নিবেন মানের যেন আপনার প্রসেসরকে কুল রাখতে পারে ঠান্ডা রাখতে পারে প্রসেসর যেন বেশি গরম না হয়ে যায়

তাই আপনারা এই কুলিং ফ্যান টি নিতে পারেন কম টাকার মাজে ভালো একটি কুলিং ফ্যান HF-690 CPU Cooler Fan Core i3-iCore7

অনলাইন প্রাইস লিংক ৪৫০-৫০০ টাকা পেয়ে যাবেন

মাদারবোর্ড

মাদারবোর্ড হলো কম্পিউটারের মেইনরোড এই বোর্ডের ভিতর কম্পিউটারের সকল কম্পোনেন্টগুলো বসানো হয়

তাই এই মাদারবোর্ড কম্পিউটারের জন্য অনেক গুরুত্ব পূর্ণ ,তো আমরা যেহেতু 10 থেকে 15 হাজার টাকার মধ্যে একটি কম্পিউটার তৈরি করব

তাই আমাদের কম্পোনেন্ট গুলো কেনার সময় ভাল ভাবে খেয়াল রাখতে হবে যেন আমরা কমদামে ভালো পার্স কিনতে পারি

মাদারবোর্ড এর জন্য অনেকগুলো কোম্পানি রয়েছে যেমন: আসুস। গিগাবাইট MSI, এগুলো তাছাড়া কিছু চায়না মাদারবোর্ড রয়েছে যেমন :ইসোনিক

মাদারবোর্ড যদি আমরা আসুস বা গিগাবাইট মাদারবোর্ড গুলো নেই নতুন তাহলে ৬৫০০-৭০০০ টাকার মতো দাম পরে যাবে,

তাই আমরা কিছু কোরিয়ান মাদারবোর্ড রয়েছে কোরিয়ান মাদারবোর্ড অর্থাৎ বাহিরের দেশে কিছুদিন ব্যবহার করা হয়েছে

এই মাদারবোর্ড গুলি ফ্রেশ করে বাংলাদেশে পাঠানো হয় এই মাদারবোর্ড গুলোকে কোরিয়ান মাদারবোর্ড বলা হয়

কোরিয়ান মাদারবোর্ডে ক বছর ওয়ারেন্টি থাকে আর নতুন মাদারবোর্ড গুলিতে তিন বছর ওয়ারেন্টি থাকে

আপনারা চাইলে কোরিয়ান মাদারবোর্ড গুলি নিতে পারেন 2500 থেকে 3000 টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন

কোরিয়ান মাদারবোর্ড গুলি যে কোন কম্পিউটারের দোকানে গেলেই পেয়ে যাবেন অথবা ইউটিউবে সার্চ দিলে যাবেন

তা ছাড়া আপনি যদি কমদামে নতুন মাদারবোর্ড নিতে চান তাহলে চায়না esonic মাদারবোর্ডে নিতে পারেন ৩২০০-৩৫০০ টাকার মাজে পেয়ে যাবেন এক বসরের ওয়ারেন্টি থাকবে

অনলাইন esonic মাদারবোর্ড প্রাইস লিংক

কম্পিউটার রেম

কম্পিউটারের রেম যত বেশি হবে কম্পিউটারটি তত ভালো ভাবে রান করবে এবং বেশি বড় বড় সফটওয়্যার ইন্সটল করতে পারবেন তাই কম্পিউটারের রেম বেশি হলে ভালো হয়

তো আমাদের যেহেতু বাজেট কম তাই আমরা আজকে 4gb একটি রেম আলোচনা করব

কিন্তু আপনারা চাইলেই ৮gb রেম নিতে পারেন পারেন তাহলে ফটোশপ ভিডিও এডিটর সফটওয়্যার গুলি ব্যবহার করতে পারবেন

আমাদের এই কনফিগারেশনের সাথে সর্বোচ্চর 16Gb DDR3 RAM use করতে পারবো

AData ব্রান্ডের 4GB DDR3 1600 Bus একটি রেম অনলাইন প্রাইস ৯০০-১০০০ টাকা পেতে যাবেন price link Life Time Product Warranty.

AData ব্রান্ডের 8GB DDR3 1600 Bus একটি রেম অনলাইন প্রাইস 1700-1750 টাকা পেতে যাবেন অনলাইন প্রাইস লিংক Life Time Product Warranty.

হার্ডডিক্স/SSD

হার্ডডিক্স স্পেস থেকে বেশি হলেও কম্পিউটার অনেক কিছু রাখা যায় এবং কম্পিউটারের ফাস্ট রান করে

আমরা 500gb যদি একটি হার্ডডিস্ক ব্যবহার করি সেটি পুরাতন হবে 500gb হার্ডডিস্ক নতুন হয় না সাধারণত

৫০০জিবি হার্ডডিস্ক কিনতে খরচ পড়বে ১১০০-১৩০০টাকা কিন্তু আমরা যদি একটি 128gb এসএসডি ইউজ করি

তাহলে আমাদের কম্পিউটার অনেকগুণ বেশি গতি হবে ফাস্ট চলবে কম্পিউটারতাই আমরা যদি পারি 256gb একটি SSD নিতে পারি

500 জিবি হার্ডডিস্ক অনলাইন প্রাইস

৯০০-১৫০০ টাকার মধ্যে কপি ssd পাওয়া যায় আমরা সেগুলি নিব না,

কিংসম্যান ব্র্যান্ডের ১২৮ জিবি SATA SSD অনলাইন প্রাইস ১৯০০-২০০০ টাকা Manufacturing Warranty
04 years

পাওয়ার সাপ্লাই

পাওয়ার সাপ্লাই হচ্ছে কম্পিউটারের মেন একটি পার্স যেখানে কম্পিউটার কে পাওয়ার দিয়ে থাকে তাই এটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ

তাই পাওয়ার সাপ্লাইটি ভালো মানের হওয়া চাই

কিন্তু আমরা বাজারে দেখতে পারি যে 400 থেকে 500 টাকা 600 টাকার মাঝে পাওয়ার সাপ্লাই পাওয়া যায় ৬ মাসের এক বছরের ওয়ারেন্টি তিন মাসের ওয়ারেন্টি

কিন্তু এইসকল পাওয়ার সাপ্লাই গুলি বেশি ভালনা

আজকে আমরা যে পাওয়ার সাপ্লাইটি পছন্দ করব সেটি হচ্ছে Revenger 350 Watt Power Supply

এই পাওয়ার সাপ্লাই টি কম দামের মধ্যে অনেক ভালো একটা পাওয়ার সাপ্লাই এটি আপনারা ইউটিউবে রিভিউ দেখেন নিতে পারেন চাইলে,

অনলাইন প্রাইস ১২০০-১৩০০ টাকা

কেচিং

কম্পিউটারের কেসিং কি হচ্ছে দেখতে সুন্দর এবং কম্পোনেন্টগুলো রাখার জন্য একটি সেফ জায়গা কেসিং দামি বা কম দামি হলে আপনার কম্পিউটারের স্পিড বাড়বে অথবা কম হবে বিষয়টা এরকম না

তারপরও আমরা মোটামুটি এক হাজার থেকে 1500 টাকার মধ্যে একটি কেচিং পছন্দ মত নিয়ে নিতে পারেন যে কোন দোকানে গেলেই পেয়ে যাবেন অনলাইন প্রাইস REVENGER MX 10 ১২৫০ টাকা

তাছাড়া ১৯০০-২১০০ টাকার মাঝে একটি ভালো কেচিং রয়েছে চাইলে আপনার নিতে পারেন XTREME V3 FULL WINDOW GAMING CASE

অনলাইন প্রাইস লিংক

কিবোর্ড মাউস

কিবোর্ড মাউস হচ্ছে কম্পিউটারকে অপারেট করার জন্য ভালো মানের অনেক ব্র্যান্ডের কিবোর্ড মাউস পেয়ে যাবেন

তবে কিছু কম্বো অফার রয়েছে যে 500 টাকার ভিতরে কিবোর্ড এবং মাউস পেয়ে যাবেন এরকম একটি নিয়ে নিতে পারেন

অথবা তাইলে একটু বেশি দামের ভিতরে নিতে চাইলে logitech ব্রান্ডের কিবোর্ড মাউস নিতে পারেন 3 বছরের ওয়ারেন্টি থাকবে ১০০০-১২০০ টাকা লাগবে

১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে পিসি টাকা হিসাব

হিসাব:2400+450+3200+900+1900+1200+1250+1000=12300

আপনি যদি প্রোডাক্টগুলো সরাসরি দোকান থেকে কিনেন তাহলে অবশ্যই কিছুটা কম পাবেন তাছাড়া

আমি মাউস কিবোর্ড এ 1000 টাকা ধরেছি চাইলে আপনি সেটি 500 টাকা দিয়ে দিতে পারেন

এবং আমি SSD প্রাইস ধরেছি আপনি চাইলে হার্ডডিক্স নিতে পারেন সেখানে এক হাজারের মতো সেভ হবে

এইভাবে কমালে আপনি ১০ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার বানাতে পারেন

১০থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার নিয়ে শেষ কথা

১০ হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার বা10 থেকে 15 হাজার টাকার মধ্যে কম্পিউটার কিভাবে কি কি প্রোডাক্ট নিতে পারেন বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে প্রাইস সহ আশা করি আপনাদের ভালো লেগেছে

আর একটি কথা গুরুত্বপূর্ণ কথা হলো যে এ সকল পার্স নিয়ে আলোচনা করা হলো

কিছুদিন পরপর প্রাইস কমবেশি হয় তো আমি যে প্রাইস লিংক গুলো দিয়েছি সেগুলোর ভিতরে কমবেশি হতে পারে দামের তারতম্য হতে পারে

আরেকটি বড় বিষয় হচ্ছে যে আপনারা এই প্রোডাক্ট গুলি যদি কোন দোকান থেকে নিতে চান তাহলে

অবশ্যই প্রতিটি প্রোডাক্ট 50 থেকে 100 টাকা বা 200 টাকা পর্যন্ত কম দামে পেয়ে যাবেন

আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি আমি অনলাইন থেকে যে প্রাইস গুলো দেখি যখন কিনতে যাই তখন কম দামে পাওয়া যায়

অবশ্যই যাচাই বাঁচায় করে প্রোডাক্ট গুলি নিবেন ভালো দোকান থেকে নিবেন যেন আপনাদেরকে 2 নম্বর জিনিস নাদিতে পারে

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন সবার জন্য দোয়া করবেন আর ভাল লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

আসসালামু আলাইকুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *